ব্যাকলিংক কি ?

0
238

রিয়েল উদাহরণ: যখন আমরা কোম্পানীতে চাকরির জন্য আমাদের জীবন বৃত্তান্ত তৈরী করি, তখন নিচের দিকে আমরা ”রেফারেন্স” এর নাম ঠিকানা যুক্ত করে দেয়। আমরা কি করি, একটি জিবন বৃত্তান্ত কম্পিউটারের দোকান থেকে প্রিন্ট করে নিলাম এবং আমাকে চিনে না কিন্তু আমি চিনি এরকম একটি ব্যক্তিকে রেফারেন্স এ নাম দিয়ে দিলেন। আবার দেখা যায়, আপনি জব আপ্লাই করবেন আইটিতে আর আপনি রেফারেন্স দিলেন লবন ব্যবসায়ীর। রেফারেন্স টা সুপারিশ এর মতো কাজ করে, আপনি আপ্লাই করছেন- ইন্জিনিয়ারিং এ , আর সুপারিশ নিচ্ছেন “ বিড়ি কোম্পানীর সেলস ম্যান এর” ।
আপনি যে ইন্ড্রাস্টিতে ক্যারিয়ার করবেন সে ইন্ড্রাস্টির যদি হাই প্রফাইলের একজন ব্যক্তির সুপারিশ গ্রহন করতে পারেন তাহলে আপনার চাকরি হয়ে যাবে। এরকম কয়েকটা সুপারিশ ই যথেস্ট জব পেতে, কিন্তু যদি আপনি এক্ষেত্রে স্কুল মাস্টারের সুপারিশ ১০০০০০ নান লাভ আছে? নেই । কারণ স্কুল মাস্টার ইন্জনিয়ারিং সম্পর্কে জানে না।

মুল কথা: আপনি যদি আপনার নিস রিলেটেড ব্যকলিংক করতে না পারেন , তাহলে হাজার ব্যকলিংক করেও লাভ নেই[সাময়িক লাভ আছে]। তবে এটুকু মনে রাখুন যে , একজন বিড়ি কোম্পানীর সেসল ম্যান এর সুপারিশ পাওয়া সহজ আর একজন ইন্জিনিয়ার এর সুপারিশ পাওয়া কঠিন। মানে কোয়ালিটি ব্যকলিংক এত সহজ না, কঠিন জিনিস। কিন্তু কাজ করতে পারলে সহজ। এখন আরেকটা বিষয় বলি, সেটি হলো, যে আপনি রেফারেন্স হিসেবে ১০,০০০ দারওয়ান,মালি, ঝাড়ুদার, পিয়ন এর সুপারিশ নিলেন ওই কোম্পানী রিলেটেড কিন্তু কোন লাভ আছে? নাই। ঠিক তেমননি ইন্ড্রাস্ট্রি রিলেটেড হলেও পজিশন মানে পিআর , ডিআর ইত্যাদি দেখতে হবে।

ধন্যবাদ। আমি কালকে কোয়ালিটি ব্যকলিংক এর অন্যতম উপায় “ গেষ্ট পোষ্ট” নিয়ে লিখবো। ধন্যবাদ।

কমেন্ট/শেয়ার/ লাইক কোন কিছু পাওয়ার আশাই লিখলাম না। ইচ্ছে হলে মতামত জানাতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here